সংবাদ শিরোনামঃ
স্কুল-কলেজ খুলে দিতে যারা উসকানি দিচ্ছে তারা বাংলাদেশের শত্রুঃ আমু রেসিপিঃ সুজির পাকন পিঠা বানানো শিখে নিন রেসিপিঃ শিম এর ভর্তা শিখে নিন মালয়েশিয়ায় বিনা চিকিৎসায় মৃত্যু বরণ করলো রেমিট্যান্স যোদ্ধা সাইদুল! পটুয়াখালীর একই পরিবারের ৫৭ জন কোরআনের হাফেজ! আমেরিকার একটি অঙ্গরাজ্যে খ্রিস্টান ভদ্রমহিলার ইসলাম গ্রহণ! বাংলাদেশের সাংস্কৃতিক অঙ্গন থেকে ঝরে গেলো আরো একটি নক্ষত্র এটিএম শামসুজ্জামান নিউজিল্যান্ড সিরিজে টাইগাদের চমক দেখালো সিলেটের নাসুম করোনামুক্ত হলেন ইসলামিক ব্যক্তিত্ব শায়খ আহমাদুল্লাহ বাংলাদেশি গৃহকর্মী আবিরন হ’ত্যা মা’মলায় সৌদি নাগরিককে মৃ’ত্যুদণ্ড দিয়েছে
গরু চুরির অপবাদ দিয়ে অসহায় মা মেয়েকে জনসম্মুখে পেটালো ইউপি চেয়ারম্যান

গরু চুরির অপবাদ দিয়ে অসহায় মা মেয়েকে জনসম্মুখে পেটালো ইউপি চেয়ারম্যান

গরু চুরির অপবাদ দিয়ে অসহায় মা মেয়েকে জনসম্মুখে পেটালো ইউপি চেয়ারম্যান।

গরু চুরির অপবাদ দিয়ে অসহায় মা মেয়েকে জনসম্মুখে পেটালো ইউপি চেয়ারম্যান। আর কতদিন অন্যায় অত্যাচার সহ্য করবে সাধারণ জনগণ এই ধরনের লম্পট, চাঁদাবাজ, দুর্নীতিবাজ, চরিত্রহীন, নিকৃষ্ট নেতাদের কাছ থেকে”

আজ, মা-মেয়েকে গরু চুরির অপরাধে বেঁধে ইউনিয়ন পরিষদ পর্যন্ত নিয়ে যাওয়া ঘটনাটি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়। এই ঘটনাটি শুধু একটি ইউনিয়নের না। বাংলাদেশে প্রায় প্রতিটি ইউনিয়নের চেয়ারম্যানতাদের নিজের মতো করে জনগণকে অত্যাচার করে। বাংলাদেশের প্রতিটি সাধারণ মানুষের জানা আছে যে বর্তমানে নিকৃষ্ট নেতাদের কাছ থেকে সাধারণ জনগণ কতটা হয়রানি শিকার হয়।

যেমন ধর্ষণ, চাঁদাবাজি, দুর্নীতি, আরও নানান ধরনের অন্যায় করা হয় সাধারন জনগণের উপর। বাংলাদেশের বিচার বিভাগের স্বাধীনতার না থাকায় বর্তমান ক্ষমতাসীন দলের জনপ্রতিনিধিরা যাচ্ছেতাই ব্যবহার করার সুযোগ পাচ্ছেন।

অনেকেই বলছে বৃদ্ধার, মেয়েকে বিয়ে করতে না পারায় পরিকল্পিত ভাবে তাদের অপবাদ দেয়া হয়েছে, বাংলাদেশের আইনে কোথাও নেই অপরাধীর অপরাধ প্রমাণ হওয়া সত্ত্বেও যে কেউ তার ইচ্ছামত আইন নিজের হাতে তুলে নিতে পারবে না।

অথচ এই ইউনিয়ন চেয়ারম্যান এ আইনের তোয়াক্কা না করেই নিজের ইচ্ছামত মা ও মেয়েকে নির্যাতন করেছে। আমরা এ ঘটনার জন্য তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি, এবং দ্রুত চেয়ারম্যানকে আইনের আওতায় আনার জোর দাবি জানাচ্ছি। আমির হোসেন, মন্তব্য করেছেন।

এমন ক্ষমতার অপব্যবহারকারীদেরকে কঠোরহস্তে দমন করতে হবে। এই সন্ত্রাসী চেয়ারম্যানকে জনগন দ্বারা প্রতিহত করতে হবে এবং জনসমক্ষে বিচার করবে সাধারণ জনতা। মা বোনেরা কখনোই চোর হতে পারেনা,

সোহেল মিরাজ,মন্তব্য করেছেন। এমন বর্বরোচিত জঘন্য ও অসভ্যতার বহিঃ প্রকাশ যে করতে পারে তাকে মনে হয় পৃথিবীতে বাঁচায় রাখার কোন প্রয়োজন নেই।

আনোয়ার মিয়া, মন্তব্য করেছেন। নেতার হাতে ক্ষমতা থাকলে, অযোগ্য বিচারের বহিঃ প্রকাশ ঘটবে এটাই স্বাভাবিক। হায়রে!আজগুবি দেশ,মনে হচ্ছে দেখার কেউ নেই । আইনের শাসন ও সঠিক বিচারের বাণী নিরবে কাঁদছে ।

মোঃ রিপন, মন্তব্য করেছেন। ভাষা নাই কিছু বলার। দেশের আইন ব্যবস্থা নেই বললেই চলে।সাধারণ মানুষের প্রতিবাদ করার ক্ষমতাটুকু ও নাই।আমরা কোন দেশে বাস করছি।

রহুল আমিন খান, মন্তব্য করেছেন। বাংলাদেশে দিনকে দিন যে ভাবে আইন শৃঙ্খলা অবনতি হচ্ছে , এতে বহির বিশ্বের কাছে আমাদের সম্মান ইজ্জত কতটুকু আছে।

তুষার আহামেদ মন্তব্য করেছেন। এ কোন অসভ্যতা । যদি অপরাধ করে তার সাস্তি আছে, আইন আছে আদালত আছে । কিন্তু এটা কোন অসভ্যতা । মানুষের নুন্যতম মুল্যবোধটুকু নেই । বতমান সমাজ ব্যাবস্তাই এটা মারাত্বক অবক্ষয় । এর সাথে জড়িতদের যথাপযুক্ত শাস্তি চাই

আপনার মতামত জানান

শেয়ার করুনঃ

খুজুন




সর্বশেষ সংবাদ

© ২০২০ | নিউজ ইবিডি ২৪ কর্তৃক সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত 
Design BY NewsTheme