চলুন এবার নিজ নিজ সামর্থ অনুযায়ী দানের “শাে অফে”ভরিয়ে দেই ফেসবুকের নিউজ ফিড।

চলুন এবার নিজ নিজ সামর্থ অনুযায়ী দানের “শাে অফে”ভরিয়ে দেই ফেসবুকের নিউজ ফিড।

চলুন এবার নিজ নিজ সামর্থ অনুযায়ী দানের “শাে অফে"ভরিয়ে দেই ফেসবুকের নিউজ ফিড।

এই ধরনের ছবিতে আমি সবসময় আমার সামনে থাকা মানুষগুলাের মুখ ঢেকে দেই। আজকে দিবাে না। আপনাদের দেখার সুযােগ করে দিবাে ফুটফুটে বাচ্চা গুলাের আনন্দ বুঝার সুযােগ করে দিবাে কত সামান্যতেই তাদের তুষ্টি! যারা নিজের পােশাকের রং চেনে না কিন্তু বুঝতে পায় নতুন জামার গন্ধ ছবিতে যে বাচ্চা গুলােকে দেখছেন তারা দৃষ্টি প্রতিবন্ধী।

দক্ষিন চর্থার সৈয়দবাড়ি এলাকায় এদের বসবাস। সুবিধাবনচিত এই শিশুরা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী গনতন্ত্রের মানস কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার দেয়া বাসভবনে থাকে খাবার খায় এবং পড়াশােনা করে। শুধুমাত্র তাদের ব্যক্তিগত খরচগুলাে তাদের পরিবার বহন করে। দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হলেও অনেক অংশে এদের জ্ঞান, প্রজ্ঞা ও মেধা আপনার আমার থেকে অনেক অনেক বেশি।

আরও পড়ুনঃ জীবন নাকি জীবিকা কোনটা বড় ?

কিছুদিন আগে এই স্কুল থেকে তাফসিরুল্লাহ গোল্ডেন A+ পেয়ে এখন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ছে। মেধাবী ছাত্র সুজন বাংলাদেশ বেতারের শিল্পী। গতকাল ও একজন ছাত্র নবীজীকে নিয়ে অসাধারন একটি ইসলামী গান গেয়ে শুনালাে। পরে জানতে পারলাম সে টিভি শাে “সা রে গা মা ” তে গান গেয়েছে। এবার আসি একটু ভিন্ন প্রসঙ্গে।

আমাদের মাঝে দু ধরনের মানুষ আছে যাদের একদল মনে করে অন্যকে সাহায্য করতে অঢেল অর্থের প্রয়ােজন। আর অন্যদল মনে করেন দানের প্রচার মানেই “শাে-অফ” | প্রথম দলের জন্য বলছি- যেমন ধরুন, এই স্কুলের বাচ্চা ১০ জন। এদের ঈদের পােশাক বানাতে আর ইফতারের খাবার কিনতে কিন্তু অনেক বেশি টাকা লাগেনি। 

এদের ১০ জনের জামায় যে খরচ হয়েছে। আমাদের মাঝে অনেকেই এর থেকে বেশি টাকা দিয়ে ব্যান্ডের শাে রুম থেকে নিজেদের জন্য পাঞ্জাবী বা। শাড়ি কিনেছি।আমরা অনেকেই এর থেকে ডাবল টাকায় বন্ধু বান্ধব নিয়ে ইফতার পার্টি করেছি। তাই আমি মনে করি আপনার আশে পাশে সুবিধাবনূচিত মানুষকে সাহায্য করতে আসলেই আপনার অঢেল অর্থের প্রয়ােজন নেই।

প্রয়ােজন শুধুই ইচ্ছা শক্তির। এবার দ্বিতীয় দলের জন্য বলি – দানের প্রচার যদি “শাে -অফ ” হয় আমি আসলেই মন থেকে চাইবাে আমরা প্রত্যেকেই যেনাে এই “শাে আফ” টা করি। শহরের উপর অবস্থিত একটা দৃষ্টি প্রতিবন্ধী স্কুলের মাত্র ১০ টা বাচ্চারও ঈদে পরার মত নতুন জামা ছিলাে

। যারা ফেসবুকে বড় বড় কথা লিখি তাদের খবর আছে ?? অনেক তাে হলাে নতুন জামা, নতুন গাড়ি, পাঁচ তারা হােটেলের বা ভাল রেস্টুরেন্টের বাফেট ইফতার বা ২২০০ টাকা কেজি জিলাপির শাে আফ! চলুন এবার নিজ নিজ সামর্থ অনুযায়ী দানের “শাে অফে” ভরিয়ে দেই ফেসবুকের নিউজ ফিড। ঈদের আনন্দ হােক সবার জন্য সমান।

আপনার মতামত জানান

শেয়ার করুনঃ

খুজুন




সর্বাধিক পঠিত

© ২০২০ | নিউজ ইবিডি ২৪ কর্তৃক সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত 
Design BY NewsTheme