ব্যবসায়ী বেশি ধানের শীষে,সম্পদশালী বেশি নৌকায়।

ব্যবসায়ী বেশি ধানের শীষে,সম্পদশালী বেশি নৌকায়।

ব্যবসায়ী বেশি ধানের শীষে, সম্পদশালী বেশি নৌকায়।

দ্বিতীয় ধাপের পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থীদের মধ্যে একটি জায়গায় বেশ মিল। সেটি হলাে পেশা। দুই দল থেকেই মনােনীত ব্যক্তিদের বেশির ভাগ ব্যবসায়ী।

তবে আওয়ামীলীগের চেয়ে বিএনপিতে ব্যবসায়ী প্রার্থীর সংখ্যা বেশি। বিএনপির প্রার্থীদের প্রায় ৮৭ শতাংশই পেশায় ব্যবসায়ী, আর আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের মধ্যে ব্যবসায়ী আছেন প্রায় ৭৩ শতাংশ। পেশায় ব্যবসায়ী বেশি হলেও বিএনপির প্রার্থীদের আয় ও সম্পদ তুলনামূলক কম।

প্রথম ধাপের মতাে দ্বিতীয় ধাপের নির্বাচনেও প্রতিদ্বন্দ্বী বিএনপির প্রার্থীদের চেয়ে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের আয় ও সম্পদ তুলনামূলক বেশি। অন্যদিকে এখন বেশি মামলাবিএনপির প্রার্থীদের বিরুদ্ধে। ৭৬ শতাংশ প্রার্থীর বিরুদ্ধে মামলা আছে। অন্যদিকে আওয়ামীলীগের প্রার্থীদের মধ্যে এখন মামলা আছে প্রায় ১৬ শতাংশের নামে।

(১) বিএনপির প্রার্থী”দের ৮৭ % ব্যবসায়ী। (২) আর আ.লীগের৭৩% ব্যবসায়ী । ২৮ জনের বার্ষিক আয় ৫ লা’খের বেশি। তাঁদের ২০ জনই আ.লীগের। স্থাবর সম্পদ বাদ দিয়ে নগদ, সঞ্চয়”সহ ১০ লা’খ টাকা এর বেশি সম্পদ আছে ৩৭ জ’নের। তাঁদের মধ্যে ২২ জন হল আওয়ামী লীগের।

দ্বিতীয় ধাপে ১৬ জানুয়ারি ৬২টি পৌরসভায় ভােট অনুষ্ঠিত হবে। এগুলাের মধ্যে ৪৫টি পৌরসভার মেয়র পদে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির প্রার্থীদের হলফনামাবিশ্লেষণ করে এই চিত্র পাওয়া গেছে। এর মধ্যে একটি পৌরসভায় আওয়ামীলীগের প্রার্থীর হলফনামা পাওয়া যায়নি।

আরও পড়ুনঃ দেশে প্রথম ধাপে অনুষ্ঠিত ২৪টি (পৌরসভা নির্বাচন সুষ্ঠ ও শান্তিপূর্ণ হয়েছে )

এই দুই দলেই অক্ষর জ্ঞান”সম্পন্ন প্রার্থী থেকে শুরু করে স্নাতকোত্তর পাস প্রার্থী আছেন। অবশ্য দুই দলেই প্রার্থীদের একটি বড় অংশ উচ্চশিক্ষিত।

আওয়ামী লীগের প্রার্থীদের মধ্যে ২১ জন এবং বিএনপিরও ২১ জন স্নাতক/স্নাতকোত্তর পাস। সর্বোচ্চ উচ্চমাধ্যমিক পর্যন্ত পড়ালেখা করেছেন২৯ জন। শিক্ষাগত যােগ্যতা এসএসসির নিচে১৫ জনের। কয়েকজন হলফনামায় শিক্ষাগত যােগ্যতার তথ্য উল্লেখ করেননি।

আপনার মতামত জানান

শেয়ার করুনঃ

খুজুন




সর্বাধিক পঠিত

© ২০২০ | নিউজ ইবিডি ২৪ কর্তৃক সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত 
Design BY NewsTheme