সংবাদ শিরোনামঃ
সিলেট,সুনামগঞ্জ সহ বন্যার্তদের জন্য দেড় কোটি টাকা তোলা সেই গায়ককে পুলিশের ধমক বন্যাদুর্গত সিলেট ও সুনামগঞ্জ জেলার অসহায় বানভাসি মানুষের পাশে বিজিবি সিলেট ও সুনামগঞ্জ প্রিয় মাঠ মিরপুর থেকেই শেষ বিদায় নিলেন মোশাররফ রুবেল। হাই ব্লাড প্রেসার কমানোর একেবারে সহজ উপায় যেসব কারণে রোজা ভেঙে যায় নর্ধারিত কিছু শর্ত লঞ্চের আগুনে : মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৩৯, নিখোঁজ অর্ধশতাধিক ! রাতে দেরি করে ঘুমাতে যান এবং সকালে দেরি করে ঘুম থেকে ওঠেন তাদের অকালে মৃত্যুর ঝুঁকি বেশি থাকে। গর্ভাবস্থায় কি করােনা টিকা নেওয়া উচিত জেনে নিন ! পাকা পেঁপে হল সবচেয়ে পুষ্টিকর ফলগুলির মধ্যে একটি। কাঁচা পেঁপেও নানা গুণে ভরপুর। নতুন ভ্যারিয়েন্টের জন্য ‘শাস্তি দেয়া হচ্ছে!দক্ষিণ আফ্রিকা
প্রিয় মাঠ মিরপুর থেকেই শেষ বিদায় নিলেন মোশাররফ রুবেল।

প্রিয় মাঠ মিরপুর থেকেই শেষ বিদায় নিলেন মোশাররফ রুবেল।

প্রিয় মাঠ মিরপুর থেকেই শেষ বিদায় নিলেন মোশাররফ রুবেল।

প্রিয় মাঠমিরপুর থেকেই শেষ বিদায় নিলেন মােশাররফ রুবেল, হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। ইউনাইটেড হাসপাতালের চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘােষণা করেন। যে মাঠের ঘাস মাড়িয়ে ব্যাট-বলে নিজেকে চিনিয়েছেন, প্রতিষ্ঠিত করে নিয়ে গেছেন বিশ্ব দরবারে, হয়েছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের একজন…আজ সেই মাঠেই মােশাররফ হােসেন রুবেল এলেন নিথর দেহে। নিঝঞ্চাট, হাসিখুশি ও দারুণ পরিশ্রমী মানুষটিকে দেখে সতীর্থরা সব সময় তার দিকে এগিয়ে যেতেন। আজ তাদের কাঁধেই প্রিয় মানুষের নিথর দেহ!

ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত হয়ে ২০১৯ সালের পর মাঠে ফেরা হয়নি মােশাররফ হােসেন রুবেলের। বিপিএলে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্সের হয়ে মিরপুরে খেলেছিলেন শেষ ম্যাচ। জাতীয় দলের জার্সিতেও মিরপুরেই তাকে শেষ দেখা গিয়েছিল ২০১৬ সালে। সেই মিরপুরেই আজ তার জানাজার নামাজ অনুষ্ঠিত হলাে। শের-ই-বাংলার আকাশ ভারী তার প্রস্থানে। মাশরাফি, মাহমুদউল্লাহ, মুশফিক, এনামুল হক, আল-আমিন, শরিফুল ইসলামরা। এলেন তার জানাজায়। সাবেক ক্রিকেটার আকরাম খান, নাঈমুর রহমান, খালেদ মাহমুদরাও উপস্থিত।

আরও পড়ুনঃ মালয়েশিয়ায় বিনা চিকিৎসায় মৃত্যু বরণ করলো রেমিট্যান্স যোদ্ধা সাইদুল!

ক্রিকেট বাের্ডের পরিচালক জালাল ইউনুস, ইফতেখার মিঠু, প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা নিজামউদ্দীন চৌধুরীও তাকে শেষ শ্রদ্ধা জানালেন। অ্যাম্বুলেন্সের সাইরেন বাজিয়ে লাশবাহী গাড়ি মিরপুর থেকে বেরিয়ে যায়। পেছনে রয়ে যায় মােশাররফ হােসেন রুবেলের স্মৃতি। শােকে মুহ্যমান প্রতিটি হৃদস্পন্দন। সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান স্মৃতিচারণ করে শুধু বললেন, একটা ভালাে মানুষের যেসব গুণ থাকা দরকার রুবেলের সব ছিল। শৃঙ্খল জীবন। ভালাে ক্রিকেট খেলতাে। ভালাে মানুষ। শিক্ষিত | |ছেলে। ভালাে পরিবারের ছেলে। উদাহরণ দেওয়ার মতাে একজন মানুষকে আজ আমরা হারালাম।

সব চেষ্টা ব্যর্থ করে, সব ভালােবাসাকে ছিন্ন করে চলে গেলেন ক্রিকেটার মােশাররফ রুবেল। মঙ্গলবার বিকেল পাঁচটায় তিনি মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)।দেশের হয়ে পাঁচটি ওয়ানডে খেলা মােশাররফ রুবেলের মস্তিষ্কে টিউমার ধরা পড়ে ২০১৯ সালের মার্চে। এরপর সিঙ্গাপুরে গিয়ে অস্ত্রোপচার করিয়ে সেই টিউমার অপসারণও করা হয়েছিল। মােটামুটি সুস্থই হয়ে উঠেছিলেন তিনি।
মঙ্গলবার হুট করে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে রুবেলকে রাজধানীর ইউনাইটেড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

ইউনাইটেড হাসপাতালের চিকিৎসকেরা তাঁকে মৃত ঘােষণা করেন। ২০১৯ সালে রুবেলের মস্তিষ্কে ক্যানসার ধরা পড়ে। এরপর সিঙ্গাপুরে অস্ত্রোপচার করে টিউমার অপসারণ করা হয়। ২৪টি কেমােথেরাপি লেগেছিল তাঁর। এরপর মােটামুটি সুস্থ হয়ে উঠেছিলেন তিনি। কিছুদিন আগে নতুন করে টিউমার ধরা পড়ে তাঁর মস্তিষ্কে। অবশ হয়ে যায় শরীরের একদিক।গত মাসে তাঁকে ভর্তি করা হয় হাসপাতালে। তবে প্রায় এক মাস পর ১৫ এপ্রিল হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরেছিলেন রুবেল।আজ আবারও অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। তাঁকে হাসপাতালে নেওয়া হয়।

তবে সেখানকার চিকিৎসকেরা রুবেলকে মৃত ঘােষণা করেন।রুবেলের বাঁচার লড়াইটা লম্বাই। সিঙ্গাপুরে অস্ত্রোপচার ও সফল কেমােথেরাপির পর মনে হয়েছিল, তিনি সুস্থই হয়ে উঠেছেন। কিন্তু গত জানুয়ারি মাসে তাঁর মস্তিষ্কে নতুন করে টিউমার ধরা পড়ে। আবারও শুরু হয় কেমােথেরাপি। নিতে হয় নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ)।তাঁর শারীরিক অবস্থা ভালাে-মন্দের মধ্য দিয়েই যাচ্ছিল। চিকিৎসার ব্যয় মেটাতে হিমশিম খাচ্ছিল তাঁর পরিবার। তবে দেশের ক্রিকেটমহল তাঁর পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে।

আগামী সপ্তাহেই তাঁর আবার কেমােথেরাপি নেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সব চেষ্টা ব্যর্থ করে চলে গেলেন এই বাঁহাতি স্পিনার।৪০ বছর বয়সী মােশাররফ রুবেল দেশের হয়ে ৫ ওয়ানডেতে পেয়েছেন ৪ উইকেটে। ২০০৮ সালে চট্টগ্রামে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে তাঁর অভিষেক। খুব নিয়মিত কখনােই হতে পারেননি।

সর্বশেষ জাতীয় দলে খেলেছেন ২০১৬ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে।মােশাররফ রুবেল প্রথম শ্রেণির ম্যাচ খেলেছেন ১১২টি, লিস্ট এ ১০৪টি। ঘরােয়া টি-টোয়েন্টি খেলেছেন ৫৬টি। প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ৩৯২ উইকেট তাঁর। সেরা বােলিং ৯/১০৫। লিস্ট এ ক্রিকেটে তিনি উইকেট নিয়েছেন ১২০টি। টি-| টোয়েন্টিতে ৬০ উইকেট তাঁর।ঘরােয়া ক্রিকেটে বরিশাল বিভাগ, মধ্যাঞ্চলের হয়ে প্রথম শ্রেণির ক্রিকেট খেলেছেন। বিপিএলে খেলেছেন ঢাকা গ্ল্যাডিয়েটর্স, খুলনা টাইটানস প্রভৃতি দলে।

আপনার মতামত জানান

শেয়ার করুনঃ

খুজুন




সর্বশেষ সংবাদ

সর্বাধিক পঠিত

© ২০২০ | নিউজ ইবিডি ২৪ কর্তৃক সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত 
Design BY NewsTheme